রেললাইনে ফাটল, লাল কাপড় উচিয়ে ট্রেন থামালেন তরুণ

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার ঘাটিনা ব্রিজের পশ্চিম পাশে রেললাইনে ফাটল দেখতে পান মো. সাদ্দাম হাসেন নামে এক তরুণ। ততক্ষণে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসে নীলফামারীগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস। দূর থেকে ট্রেন আসতে দেখে কোনও উপায় না পেয়ে লাল কাপড় দিয়ে রেল লাইনের গেটম্যান ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় উঁচিয়ে ধরেন সাদ্দাম। সতর্ক সংকেত মেনে ট্রেন থামিয়ে দেন চালক। তাতেই রক্ষা পেল সব যাত্রীসহ ট্রেন।

শনিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ১১ টা ১০ মিনিটে উল্লাপাড়া উপজেলার ঘাটিনা ব্রিজের পশ্চিম পাশে রেললাইনের ঢালুতে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে উল্লাপাড়া স্টেশনের কর্মচারীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ১৫ মিনিটের মতো দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনটি ধীর গতিতে পার করেন। রেললাইন ফাটল মেরামত শেষে প্রায় ২০ মিনিট পর ঢাকা-উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

স্থানীয় ওমর ফারুক জানান, তিনিসহ সাদ্দাম হোসেন ঘাটিনা ঢালুর রেল পথ দিয়ে হেঁটে শাহজাহানপুর যাচ্ছিলেন চুল কাটানোর উদ্দেশে। সেসময় তারা ঢাকা-ঈশ্বরদী রেললাইনের একটি অংশে ফাটল দেখতে পান। পরে নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে দুর্ঘটনা এড়াতে গেটম্যান ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় চলন্ত ট্রেনটি থামার জন্য লাল কাপড় উড়িয়ে বিপদ সংকেত দেন।

উল্লাপাড়া স্টেশন মাষ্টার রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঢাকা-ঈশ্বরদী রেলপথে উল্লাপাড়া স্টেশনের ঘাটিনা নামক এলাকায় রেললাইন ফাটল দেখা যায়। এসময় ফাটলের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি ধীর গতিতে পার করা হয়। পরে সঙ্গে সঙ্গে কন্ট্রোল, পি ডব্লিউ ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের লোকজনকে বলার পড় তারা দ্রুত গতিতে কাজ করে দিয়েছে। বর্তমানে ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।