ভিসি ছাড়াই চলছে হাবিপ্রবি!

সরকারি নির্দেশনার পর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো পরীক্ষা স্থগিত করছে। কিন্তু হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) উপাচার্য না থাকায় সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক দায়িত্বপালনরত শিক্ষকরা।

চলতি বছরে ১ ফেব্রুয়ারি শেষ হয়েছে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ৬ষ্ঠ উপাচার্যের মেয়াদ। কিন্তু এখন পর্যন্ত উপাচার্য বা রুটিন দায়িত্ব উপাচার্য নিয়োগ দেয়নি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। এর ফলে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী চলমান পরীক্ষার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট অনুষদের ডিন ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. নাজিমউদ্দীন বলেন, চলমান পরীক্ষা বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যে সিদ্ধান্ত নিবে সেভাবে চলবে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. বিধান চন্দ্র হালদার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের পদ শূন্য রয়েছে। একজন উপাচার্য যে সিদ্ধান্ত নিতে পারে সে সিদ্ধান্ত আমি নিতে পারি না। এখন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট শাখা রুটিন দায়িত্বে উপাচার্য নিয়োগ দেয়নি। কাউকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব দেওয়া হলে তিনি সিদ্ধান্ত নিতে পারতেন। তবে সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যাওয়া যাবে না। সরকার নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী ১৭ মে আবাসিক হল এবং ২৪ মে শ্রেণীকক্ষে সরাসরি ক্লাস করতে পারবে শিক্ষার্থীরা।

তিনি আরও জানান, চলমান পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে সংশ্লিষ্ট ডিন। আর নতুন করে কোনো ব্যাচের পরীক্ষা নেয়া হবে না।