চট্টগ্রামে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ছাত্রলীগ নেতা নিহত

চট্টগ্রামের বায়েজীদ এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ইমন রনি নামে এক ছাত্রলীগ নেতা নিহত হয়েছেন।

রোববার (৭ মার্চ) রাতে সংঘর্ষের এক পর্যায়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এলাকায় আধিপত্য নিয়ে গত এক বছর সময় ধরে ইমন রনির অনুসারীদের সাথে সোহেল গ্রুপের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এ নিয়ে একাধিকবার তাদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটেছিল। রোববার রাত ৯টার দিকে ইমন রনি তার অনুসারীদের নিয়ে স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে আড্ডা দেয়ার সময় সোহেল তার অনুসারীদের নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে ইমন রাস্তায় পড়ে গেলে তাকে উপর্যুপরি কোপানো হয়।

পরে তার অনুসারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে আসলে সোহেলসহ অনুসারীরা পালিয়ে যায়। পরে ইমনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত ইমন পেশায় সিএনজি চালক হলেও সদ্য ঘোষিত বায়েজীদ থানা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য মনোনীত হয়েছিলেন।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ এর আগেও বেশ কয়েকবার তারা থানায় অভিযোগ জানিয়েও কোনো প্রতিকার পায়নি।