বাংলাদেশের মানুষকে স্যালুট জানাই: প্রধানমন্ত্রী

নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত জানানোর বাংলাদেশের মানুষ যেভাবে পাশে দাঁড়িয়েছে সে কথা স্মরণ করে দেশবাসীকে স্যালুট জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আগে সুধী সমাবেশে দেওয়া বক্তব্যে তিনি দেশবাসীর প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেক বাধা বিপত্তি পেড়িয়ে, ষড়যন্ত্র পিছনে ফেলে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করতে পেরেছি। এটা শুধু ইট-সিমেন্টের তৈরি একটি অবকাঠামো নয়, এটা আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব। এই সেতু বাংলাদেশের জনগনের। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে আমাদের আবেগ, সাহসিকতা, জেদ, প্রত্যয়। শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে মাওয়া প্রান্তে আয়োজিত সুধি সমাবেশে দেওয়া বক্তব্য এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রের কারণে পদ্মা সেতু তৈরিতে দুই বছর বিলম্বিত হয়। তবুও আমরা হতাশায় ভুগিনি, সকল অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে যাত্রা করতে পেরেছি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, কেউ দাবায় রাখতে পারবা না। কেউ পারেনি। আমরা বিজয়ী হয়েছি। সাবাশ বাংলাদেশ, পৃথিবী অবাক হয়ে তাকিয়ে রয়। আমরা মাথা নোয়াইনি। কখনো মাথা নোয়াবো না। বঙ্গবন্ধু ফাঁসির মঞ্চে দাড়িয়ে জীবনের জয়গান গেয়েছিলেন। বাংলার মানুষের মুক্তি চেয়েছিলেন, স্বাধীনতা চেয়েছিলেন। সেই স্বাধীনতা তিনি আমাদের এনে দিয়েছেন।

পদ্মা সেতু নিয়ে বিরোধিতা ও ষড়যন্ত্রকারীদের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে বলে আশা করেন প্রধানমন্ত্রী। তারা দেশের মানুষের প্রতি আরও দায়িত্ববান হবেন, এমন আশাও করেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ কারও বিরুদ্ধে আমার অভিযোগ নেই। তাদের চিন্তার দৈন্যতা আছে, আত্মবিশ্বাসের অভাব আছে। তাই তারা হয়তো বিরোধিতা করেছেন।

এসময় তিনি স্মরণ করেন বাংলাদেশের অর্থনীতি করোনা মোকাবিলা করেও গতিশীল। অনেকের শঙ্কা ছিল। কিন্তু আমরা সবই করেছি, পেরেছি।