বৈশাখী শাড়ি না পেয়ে কিশোরীর গলায় ফাঁস

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় আরিফা খাতুন (১৪) নামে এক কিশোরী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

আসন্ন পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে শাড়ি কিনে না দেওয়ায় মায়ের ওপর অভিমান করে আরিফা আত্মহত্যা করেছে বলে তার পরিবার এবং এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এজাহার আলী জানান, সোনাইকাজী গ্রামের অধিবাসী শামছুল হকের মেয়ে এবং চর কুলাঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী আরিফা খাতুন কিছু দিন থেকে মায়ের কাছে বৈশাখী শাড়ি কিনে দেওয়ার জন্য জেদ করছিল। মা জাহেনুর বেগম ক্ষেতের ভুট্টা বিক্রি করে শাড়ি কিনে দিতে চেয়েছিলেন। সকালে আবারও সে শাড়ির জন্য বায়না শুরু করলে মা তাকে ধমক দেন। এতে অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে।

এ প্রসঙ্গে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাজীব কুমার রায় জানান, এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আরিফার বাবা শামছুল হক বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা করেছেন। এছাড়া আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আইনগত প্রক্রিয়া শেষে আরিফার মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।